Header Ads Widget

শিরোনাম

6/recent/ticker-posts

আলাপ অ্যাপ: একটি ইউনিক নাম্বার সহ পাবেন দারুন সব ফিচার | Alap App Details

আলাপ অ্যাপ সম্পর্কে আশা করি ইতোমধ্যে অনেকেই জানতে পেরেছেন। কিন্তু অনেকে এখনও জানে না আলাপ app কি? তাই আমার আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে আমি আপনাকে বলব Alap App কি এবং কিভাবে Alap App ব্যবহার করতে হয়। এছাড়াও এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন আলাপ অ্যাপ এর সুবিধাসহ আলাপ অ্যাপে রিচার্জ করার নিয়ম।
alap-app-details


আলাপ অ্যাপ কি - Alap App


প্রথমেই বলে নেই আলাপ app হলো একটি কলিং সার্ভিস অ্যাপস। এই অ্যাপটি চালু করেছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ কোম্পানি লিমিটেড। গত ৪ এপ্রিল ২০২১ ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এটি উদ্বোধন করেন। এটি দিয়ে আপনি খুব সহজে যে কারো সাথে ভিডিও বা অডিও কলে কথা বলতে পারবেন। এছাড়াও এই অ্যাপস দিয়ে আপনি চ্যাট করা সহ বিভিন্ন দরকারি ফাইল পাঠাতে পারবেন।

আলাপ App এর সুবিধা


আলাপ অ্যাপের নানাবিধ সুবিধা রয়েছে। এই অ্যাপের সাহায্যে আপনি ইমু বা হোয়াটসঅ্যাপ এর মত যে কারো সাথে অডিও বা ভিডিও কলে কথা বলতে পারবেন এবং যে কারো সাথে চ্যাট সহ বিভিন্ন ফাইল আদান প্রদান করতে পারবেন। এর আরেকটি সুবিধা হল আপনি যদি আলাপ অ্যাপে সাইন আপ করেন তাহলে আপনাকে একটি ইউনিক নাম্বার দেওয়া হবে। যেটি আপনার মোবাইল নাম্বারের বিকল্প হবে।


আপনি অন্যান্য আলাপ অ্যাপ ব্যবহারকারিকে ফ্রি তে কল করতে পারবেন। আবার আপনি চাইলে কারো মোবাইল নাম্বারে আপনার আলাপ অ্যাপ থেকে ফোন করতে পারবেন। তখন আপনার নিজের ফোন নাম্বার থেকে কল যাবে না বরং আলাপ অ্যাপ এর ইউনিক নাম্বার থেকেই কল যাবে। তবে আপনি যদি আলাপ থেকে অন্য কারো মোবাইল নাম্বারে ফোন করেন তাহলে প্রতি মিনিটে আপনার ৩০ পয়সা চার্জ হবে।

আলাপ অ্যাপ ব্যবহারের নিয়ম


অনেকে হয়তো এখনো জানেনা কিভাবে আলাপ কলিং অ্যাপ ব্যবহার করতে হয়। আপনিও যদি আলাপ অ্যাপ ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কে না জানেন তাহলে এই পোস্টটি সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। তাহলে আপনি জানতে পারবেন কিভাবে আলাপ অ্যাপ ব্যবহার করতে হয়।

প্রথমে আপনাকে আলাপ App টি ইনস্টল করে নিতে হবে। আপনি প্লে স্টোরে Alap App লিখে সার্চ করলে এটি পেয়ে যাবেন। এরপর সেখান থেকে অ্যাপটি ইন্সটল করে নিবেন। অ্যাপ ইন্সটল হয়ে গেলে এটি ওপেন করুন। অ্যাপটি ওপেন করার পর আপনাকে মোবাইল নাম্বার দিতে হবে। আপনি আপনার মোবাইল নাম্বার দিয়ে Continue তে ক্লিক করুন। ঠিক যেমনটা ইমো বা whatsapp এ করতে হয়। এরপর আপনার ফোনে আলাপ অ্যাপ থেকে একটি কোড পাঠানো হবে। এই কোডটি আলাপ অ্যাপের মধ্যে দিয়ে দিবেন। কোড সাবমিট করার পর আপনাকে আপনার ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে Account Varify করতে বলবে।

আপনি চাইলে এটি স্কিপ করে যেতে পারেন। কিন্তু এটা করে নেওয়া উচিৎ হবে। কেননা আপনি যদি এটি ভেরিফাই না করেন তাহলে আপনি কারো মোবাইলে কল করতে পারবেন না। তাই এটি করে নিলে ভালো। আবার এখন স্কিপ করে পরেও ভেরিফাই করতে পারবেন। পরে ভেরিফাই করার নিয়ম নিচে দেওয়া আছে। আপনি যদি এখনই ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে ভেরিফাই করতে চান তাহলে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন। 

নেক্সট বাটনে ক্লিক করার পর আপনি স্ক্যান করার জন্য দুটি অপশন পাবেন। প্রথম অপশন অর্থাৎ উপরে অংশে আপনাকে ভোটার আইডির সামনের অংশ স্ক্যান করতে বলবে। নিচের অংশে আপনি ভোটার আইডির পিছনের অংশটিকে স্ক্যান করে ছবি তুলে নিবেন। তারপর এখানে এড করে ভেরিফাই করে নিতে পারবেন।

এভাবে আপনি সহজে Alap App এর মধ্যে জয়েন হয়ে নিতে পারবেন। এই অ্যাপ এর কাজ গুলো অনেকটা ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপ এর মত। তবে এই অ্যাপ এর ব্যবহার ব্রিলিয়ান্ট অ্যাপ এর তুলনায় অনেক সহজ।

ভেরিফাই করা শেষ হলে আপনার অ্যাপটির ইন্টারফেস ওপেন হয়ে যাবে এবং আপনাকে কিছু সেটিংস অন করে দিতে হবে। ব্যাস আপনার অ্যাকাউন্ট করা হয়ে গেল। এই একাউন্ট করার সাথে সাথে আপনি একটি ইউনিক নাম্বার পেয়ে যাবেন। আপনি যদি কাউকে কল করেন তাহলে আপনার ওই ইউনিক নাম্বারটি সে পাবে। নাম্বারটি দেখতে +8809696****** এর মত হবে। 

এই ইউনিক আইডির একটি বড় সুবিধা হলো আপনি যদি কাউকে আপনার নাম্বারটি হাইড রেখে কল করতে চান অর্থাৎ আপনি যদি আপনার নাম্বারটি অন্য কাউকে দিতে না চান তাহলর এই আলাপ এপ থেকে কল করুন। তাহলে সে আপনার নাম্বারটি পাবে না এই অ্যাপস এর নাম্বার পাবে। আবার আপনি যতক্ষণ অনলাইনে থাকবেন ততক্ষণ সে আপনাকে আপনার alap app এর নাম্বারে কল দিলে কলটি আপনার অ্যাপে আসবে। আপনি রিসিভ করে স্বাভাবিকভাবে কথা বলতে পারবেন।

আলাপ অ্যাপ এর বর্ণনা Alap App Details


আপনি যখন আলাপ অ্যাপটি চালু ওপেন করবেন তখন উপরে ৫টি অপশন দেখতে পাবেন। 
Alap-app-interface
প্রথম অপশনটি হচ্ছে কল লিস্ট। এখানে আপনি দেখতে পাবেন কে আপনাকে ফোন করেছিল বা আপনি কাকে ফোন করেছেন।

পরের ধাপে আপনি দেখতে পাবেন কন্টাক্ট নাম্বার। কন্টাক্ট এর মধ্যে আপনি দুইটি  অপশন পাবেন। একটি হলো আপনার ফোনের কন্টাক্ট। আরেকটি হলো আলাপ কন্টাক্ট। আলাপ কন্টাকটার মধ্যে আপনি দেখতে পাবেন আপনার ফোনে থাকা সকল কন্টাক্ট এর মধ্যে কারা আলাপ app ব্যবহার করে। এখানে আবারো বলে রাখি যারা আলাপ ব্যবহার করে তাদেরকে আপনি ফ্রিতে কল করতে পারবেন। এতে করে আপনার কোনো চার্জ হবে না। তবে আপনি যদি আলাপ ব্যবহার করেনা এমন কাউকে কল করতে চান তাহলে প্রতি মিনিট ৩০ পয়সা করে চার্জ হবে।

উপরের তিন নাম্বার অপশন টি হলো চ্যাট। এই অপশন আপনি জানতে পারবেন আপনি কার সাথে মেসেজ এ চ্যাট করেছেন। অর্থাৎ এখানে আপনার সম্পূর্ণ চ্যাট লিস্ট থাকবে। এখানে চ্যাট করার জন্য আপনি কোন একটি কন্টাক্ট এর উপর ক্লিক করবেন। নাম্বারে ক্লিক করার পর আপনি এখানে হোয়াটসঅ্যাপ, ইমু এবং মেসেঞ্জার এর মত চ্যাট করার অপশন গুলো পাবেন।

চতুর্থ অপশনটি হল ডায়াল প্যাড। আপনি যদি অন্য কোন নাম্বারে কল করতে চান এবং নাম্বারটি তুলতে চান তাহলে এই অপশনে আসতে হবে। এই অপশনে আপনি নাম্বার তুলে ঐ নাম্বারে কল দিতে পারবেন।

পঞ্চম অপশনটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই অপশনে আপনি অনেকগুলো সেটিংস পাবেন। এখানের সকল সেটিংসগুলো নিচে ধাপে ধাপে আপনাকে বুঝিয়ে বলছি।
alap-app-settings


আলাপ Apps একাউন্ট


এখানে আপনি প্রথমে যে সেটিংস টি পাবেন এটা হল একাউন্ট। এই একাউন্ট সেটিং এ ঢুকলে আপনি আপনার নাম এবং প্রোফাইলে ছবি সেট করে দিতে পারবেন। এছাড়াও আপনি আপনার আলাপ ব্যালেন্স, আপনার আলাপ নাম্বার এগুলো দেখতে পারবেন। আপনি যদি প্রথম বার ভোটার আইডি দিয়ে একাউন্ট ভেরিফাই না করেন তাহলে এই অ্যাকাউন্ট সেটিংস থেকেও আপনি ভোটার আইডি দিয়ে একাউন্ট ভেরিফাই করে নিতে পারবেন। আবার এখান থেকে আপনি আপনার আইডিটি লগআউট করে নিতে পারবেন না।

আলাপ অ্যাপ সেটিংস


একাউন্টের পাশে আরেকটি যে অপশন আছে তা হলো সেটিংস। এই সেটিংস এর মধ্যে আপনি আরো অন্যান্য সেটিংস করে নিতে পারবেন। এখানে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ সেটিংস হলো কল রেকর্ডিং। আপনি চাইলে এখানে আপনার কলগুলো রেকর্ড করতে পারবেন। এর জন্য এখান থেকে কল রেকর্ডিং অপশন টি চালু করে দিন। শুধু কল রেকর্ডিং নয় এখানে আরও অনেক দরকারী সেটিং আছে। আপনি চাইলে দেখে নিতে পারেন।

আলাপ অ্যাপ রিচার্জ


রিচার্জ অপশনে গেলে আপনি বিকাশ, নগদ বা ভিসা/মাস্টার্ড কার্ড থেকে আপনি আলাপ অ্যাপে রিচার্জ করে নিতে পারবেন। আপনি যে প্ল্যাটফর্ম থেকে যে রিচার্জ করতে চান সেটি সিলেক্ট করুন। ধরুন আপনি বিকাশ থেকে রিচার্জ করতে চান। এরজন্য বিকাশ সিলেক্ট করুন। এবার আপনার ইচ্ছামত যেকোনো একটা রিচার্জ এমাউন্ট লিখে Continue বাটনে ক্লিক করুন। তারপর আপনাকে আপনার যে নাম্বারে বিকাশ আছে ওই নাম্বারটি দিয়ে দিতে হবে। নাম্বার দিয়ে continue তে ক্লিক করুন। এরপর আপনার পিন নাম্বারটি দিয়ে দিন। ভয় পাওয়ার কোন কারণ নেই। যেহেতু এটি একটি সরকারি অ্যাপ তাই আপনি নিশ্চিন্তে নিরাপদে রিচার্জ করতে পারবেন। তাহলেই হয়ে যাবে আপনার আলাপ অ্যাপ রিচার্জ।

আলাপ ভয়েস প্যাকেজ


রিচার্জের পর যে অপশনটা আছে এটি হলো ভয়েস প্যাকেজ। এ ভয়েস প্যাকেজের মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন ভয়েস প্যাকেজ বান্ডেল গুলো সম্পর্কে জানতে পারবেন।যেমনটা আমরা রবি, জিপি বা বাংলালিংক সিমের মধ্যে পেয়ে থাকি।

আলাপ কল রেট


তারপর যে অপশনটা আছে এটি হলো রেট। রেট অপশনের মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন কোন দেশে কথা বললে প্রতি মিনিটে কত টাকা করে কেটে নেয়া হবে। অর্থাৎ প্রতি মিনিটে কোন দেশে কত টাকা চার্জ কাটে তা আপনি দেখতে পারবেন। আলাপ এপটি এখনো নতুন তাই এখনো অনেক দেশ এটা সাপোর্ট করে না। যে দেশের কোন কল চার্জ নাই ওই দেশগুলোতে কল করা যাবে না। কারণ ওই দেশগুলো এখনো আলাপ অ্যাপস সাপোর্ট করে না। তবে পরে অনেক দেশে করা যাবে।

আলাপ নিউজ ফিড


এবার আরেকটি মজার সেটিংস হল নিউজ ফিড। নিউজ ফিডে আপনি আপনার পছন্দমত কিছু টপিক সিলেক্ট করে দিলে নিয়মিত ওই রিলেটেড নিউজগুলে আপনি এখান থেকে দেখে নিতে পারবেন।

ইনভাইট


এরপর আরেকটা অপশন আছে সেটি হল ইনভাইট অপশন। এই ইনভাইট অপশনের মাধ্যমে আপনি চাইলে আপনার পরিচিত কাউকে আলাপ অ্যাপের মধ্যে ইনভাইট করতে পারেন।

আলাপ App হেল্প


এরপর আরেকটি সেটিংস হল হেল্প অপশন। আপনার যদি আলাপ সম্পর্কে আরো কোন কিছু জানার থাকে বা কোন সমস্যা থাকে তাহলে আপনি এই হেল্প অপশন থেকে জেনে নিতে পারেন।

আশা করি আপনি আলাপ অ্যাপ এর ব্যবহার সম্পর্কে সম্পূর্ণ বুঝে গেছেন। তাহলে আর দেরি না করে এক্ষুনি আলাপ এপ ইন্সটল করে ব্যবহার করুন। আমার এ পোস্টটি যদি আপনার কাছে উপকারী বলে মনে হয় তাহলে সবার সাথে শেয়ার করুন। ধন্যবাদ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ