Header Ads Widget

শিরোনাম

6/recent/ticker-posts

বিকাশ অ্যাপ দিয়ে কিভাবে বিকাশ একাউন্ট খুলতে হয় দেখুন | bKash New Account Registration With App

আপনি কি  বিকাশ একাউন্ট খুলার উপায় (new bkash account) জানতে চান? তাহলে আপনি আমার এই পোস্টটি দেখুন। তাহলে আপনি জানতে পারবেন কিভাবে আপনি ঘরে বসে বিকাশ একাউন্ট খুলবেন। 

feature-image-of-bkash-new-account-post

তো চলুন শুরু করি। বিকাশ হল ব্র্যাক ব্যাংকের একটি সেবা। যার সাহায্যে আপনি খুব সহজেই টাকা পয়সা লেনদেন করতে পারবেন এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায়। এছাড়া এটি অনেক জনপ্রিয় একটি মাধ্যম। মুহুর্তের মধ্যে হয়ে যাবে আপনার লেনদেন। ধরতে গেলে বিকাশ আপনার লেনদেন কে আরও সহজ করে দিয়েছে। তাই বর্তমানে সবার অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং সেবা যেমন নগদ একাউন্ট, রকেট একাউন্ট বা বিকাশ একাউন্ট থাকা জরুরী। এছাড়াও রেফার অফারের মাধ্যমে বিকাশে টাকা ইনকাম করার উপায় তো আছেই।

কিভাবে বিকাশ একাউন্ট খুলবেন

সাধারণত আগে যখন বিকাশ একাউন্ট খুলতে হত তখন মানুষকে দোকানে গিয়ে বিকাশ এজেন্টের (bkash agent) কাছ থেকে বিকাশ অ্যাকাউন্ট (new bkash account) খুলে নিতে হতো। এছাড়াও অনেক ঝামেলা পোহাতে হতো আর কিছুটা সময়ও লাগত। এর ফলে অনেকে হয়তো বা খুলতে পারেননি। 

💠 আরো পড়ুন: বিকাশ এজেন্ট একাউন্ট করার নিয়ম

কিন্তু বর্তমানে বিকাশ এমন একটি সুযোগ দিয়েছে যার মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে খুব সহজে বিকাশ একাউন্ট চালু করে নিতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে বাড়তি কোন ঝামেলা পোহাতে হবে না। মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যেই হয়ে যাবে আপনার বিকাশ একাউন্ট। 


এখন আপনার মনে হয়তোবা প্রশ্ন আসতে পারে বিকাশ একাউন্ট করতে (bKash account registration) গেলে আমার কি কি লাগবে? এটার উত্তর খুবই সহজ। বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য আপনার একটি স্মার্টফোন থাকলেই হবে। এরপর আপনাকে উক্ত মোবাইলে একটি বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড (new bkash app) করে নিতে হবে। আপনি হয়তো ভাবছেন বিকাশ অ্যাপ কোথায় পাবেন। চিন্তার কোন কারণ নেই। আপনি প্লে স্টোরে গিয়ে বিকাশ অ্যাপ লিখে সার্চ করলেই অ্যাপটি পেয়ে যাবেন। এখান থেকে অ্যাপটি বিনামূল্যে ডাউনলোড করে নিবেন। 

বিকাশ একাউন্ট খোলার ধাপসমূহ 

বিকাশ অ্যাপসটি ইন্সটল হয়ে গেলে এটি ওপেন করুন। ওপেন করার পর আপনি প্রথমে নিচের মত একটি ইন্টারফেস পাবেন।

new-bkash-app-interface-image

এরপর এখান থেকে আপনাকে ক্লিক করতে হবে লগইন/রেজিস্ট্রেশন করুন অপশনে। এখানে আরেকটি কথা বলে রাখি আপনি যখন বিকাশ একাউন্ট খুলতে যাবেন তখন আপনাকে অবশ্যই ডাটা কানেকশন অন করে রাখতে হবে। আবার আপনি যে সিম দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলবেন ওই সিম টি ওই ফোনের মধ্যেই রাখবেন অর্থাৎ আপনি যে ফোন থেকে বিকাশ একাউন্ট খুলবেন ওই ফোনের মধ্যে ওই সিমটা থাকতে হবে।


"লগইন/রেজিস্ট্রেশন করুন" বাটনে ক্লিক করার পর আপনি মোবাইল নাম্বার দেওয়ার জন্য একটি অপশন পাবেন। এখানে আপনার মোবাইল নাম্বারটি দিয়ে দিবেন। তারপর নিচে পরবর্তী বা  তীর চিহ্নের মধ্যে ক্লিক করবেন। এখন আপনাকে আপনার সিমের অপারেটর অর্থাৎ আপনার সিমটি কি রবি না এয়ারটেল না জিপি নাকি বাংলালিংক এটা সিলেক্ট করে দিতে হবে। আপনার সিমটি যদি রবি হয়ে থাকে তাহলে আপনাকে সিলেক্ট করতে হবে রবি। এরপর যে উইন্ডো আসবে এখানে একটি কোড দিতে বলবে। কোডটি কোথায় পাবেন? চিন্তা নেই। আপনার সিমে একটি মেসেজ আসবে যেখানেই উক্ত কোড দেওয়া থাকবে। যেহেতু আপনার সিমটি মোবাইলের মধ্যে লাগানো থাকবে সেহেতু কোডটি অ্যাপস এর মধ্যে অটোমেটিক চলে আসবে। এরপর আবার নিচের তীর চিহ্নে ক্লিক করুন। 


পরের ধাপে আপনাকে কিছু শর্ত দেয়া হবে। এই শর্তগুলো চাইলে পড়ে নিতে পারেন আবার চাইলে না পড়লেও সমস্যা নেই। এই ধাপে আপনাকে কিছুই করতে হবে না শুধুমাত্র নিচের তীরে ক্লিক করবেন। এরপর আপনাকে একাউন্ট করার কিছু ধাপ বলে দেওয়া হবে। এই স্টেপেও আপনাকে কোন কিছু করতে হবে না। শুধুমাত্র নিচের তীরে ক্লিক করবেন। এরপর আপনাকে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের সামনের অংশটি ছবি তুলে নিতে হবে। ছবিটি পরিষ্কারভাবে তোলা হলে আপনি সাবমিট এ ক্লিক করবেন। তারপর আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের পিছনের অংশটি ছবি তুলে নিবেন। এখানেও যদি ছবিটি পরিষ্কারভাবে ওঠে তাহলে সাবমিট এ ক্লিক করবেন। এরপর আপনি আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের সকল তথ্য এখানে দেখতে পারবেন। তারপর আবার তীরের মধ্যে ক্লিক করুন। 

এর পরের ধাপে আপনাকে কিছু ইনফরমেশন সেট করতে বলবে যেমন আপনার লিঙ্গ, আপনার বার্ষিক আয়। এগুলো আপনি আপনার ইচ্ছা মত সেট করে দিতে পারেন। এগুলো সেট করার পর আবার তীরের মধ্যে ক্লিক করুন। এরপর আপনার ছবি তোলার একটি অপশন আসবে। এখানে আপনি আপনার একটি সেলফি তুলে নিবেন। সেলফি তোলার সময় খেয়াল রাখবেন আপনার সামনে যথেষ্ট পরিমাণ যাতে আলো থাকে। যাতে আপনার চেহারাটা সম্পূর্ণ ভালোভাবে দেখা যায়। এরপর সাবমিট এ ক্লিক করুন। ব্যাস আপনার কাজ হয়ে গেল। আপনার বিকাশ একাউন্ট এখন সম্পূর্ণ রেডি।

এবার আপনি যে সিম দিয়ে বিকাশ খুললেন আপনার ওই নাম্বার থেকে *২৪৭# ডায়াল করুন। এখানে আপনি একটি মোবাইল মেনু নামে একটি অপশন পাবেন। এখান থেকে আপনি পিন সেট করে নিতে পারবেন। মনে রাখবেন এই পিনটি খুবই গোপনীয় অর্থাৎ আপনি ছাড়া আর কাউকে বলবেন না। এই পিনটি সেট করার পর আপনার বিকাশ অ্যাকাউন্ট সম্পূর্ণ ভাবে তৈরি হয়ে গেল। এবার আপনি আবার বিকাশ অ্যাপ এ যাবেন। 


এরপর আপনি মোবাইল নাম্বার এবং পিন নাম্বারটা দিয়ে লগইন করুন। এখানে আপনাকে একটি নাম সিলেক্ট করতে বলবে। এখানে আপনি ইচ্ছামত একটি ইউজার নেম দিতে পারবেন। এরপর আপনাকে একটি প্রোফাইল পিকচার দিতে বলবে। আপনি চাইলে প্রোফাইল পিকচারটি দিতেও পারেন আবার নাও দিতে পারেন।

ব্যাস আপনার কাছে গেল এখন আপনার বিকাশ একাউন্ট সম্পূর্ণ ভাবে তৈরি হয়ে গেল। এখন থেকে আপনি খুব সহজেই বিকাশ একাউন্ট ব্যবহার করতে পারবেন। এখানে আরেকটা কথা বলে রাখি। যদি আপনার নিজের জাতীয় পরিচয় পত্র না থাকে। তাহলে আপনি আপনার পরিবারের অন্য কারো জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে একাউন্ট খুলতে পারবেন। তখন মাথায় রাখবেন ওইখানে ছবি তোলার সময় যার জাতীয় পরিচয় পত্র ব্যবহার করবেন তার ছবি আপনাকে ব্যবহার করতে হবে। অর্থাৎ সেলফি তোলার সময় তার ছবি নিতে হবে। তাহলেই হয়ে যাবে আপনার বিকাশ পার্সোনাল একাউন্ট। 

এভাবেই পারবেন আপনি খুব সহজে ঘরে বসেই বিকাশ এপ চালু করে বিকাশ একাউন্ট খুলতে। এছাড়াও বিকাশ সম্পর্কে জানতে বা সমস্যা সমাধানের জন্য বিকাশ লাইভ চ্যাট এর মাধ্যমে তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ